মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১০:৩৪ অপরাহ্ন৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

৩০শে শাবান, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
করোনার মাঝে ‘লন্ডনী কনে’ দিয়ে প্রতারণা, ধরা খেলেন জাপা নেত্রী শিউলী

করোনার মাঝে ‘লন্ডনী কনে’ দিয়ে প্রতারণা, ধরা খেলেন জাপা নেত্রী শিউলী

দুই সহযোগিসহ পুলিশের হাতে আটক জাপা নেত্রী শিউলী। ছবি: সংগৃহীত

সিলেটের বার্তা প্রতিবেদক:: মরণব্যধি করোনায় স্তব্ধ পুরো দেশ। আতঙ্কের মাঝে মানুষের কাটছে সময়।

এমন পরিস্থিতির মাঝেও লন্ডনী কনে দিয়ে বিয়ে বাণিজ্য করে প্রতারণার সময় দুই সহেযাগিসহ পুলিশের হাতে ধরা খেলেন জাপা নেত্রী শিউলী বেগম ওরফে দিলসানা বেগম ওরপে ইয়াছমিন (৩৪)।

তিনি বিশ্বনাথ উপজেলার কোনারাই গ্রামের তৌহিদ উল্লাহ ওরফে আবদুল মতিন চৌধুরীর মেয়ে ও সিলেট মহানগর জাতীয় মহিলাপার্টির সভাপতি বলে জানা গেছে।

শনিবার (৩ এপ্রিল) রাতে জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশের নেতৃত্বে পুলিশ দল উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে গ্রামের কামরুল ইসলামের বাড়ি থেকে দুই সহযোগিসহ ভুয়া লন্ডনীকন্যা শিউলিকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার হওয়া প্রতারক চক্রের অন্য দুই নারী সদস্য হলেন ছাতক উপজেলার দোহালিয়া গ্রামের কাচা মিয়ার মেয়ে সুমনা আক্তার (১৯) ও নবীগঞ্জ থানার গোলডুবা গ্রামের মৃত আজাদ মিয়ার মেয়ে সীমা আক্তার (১৯)।
গ্রেফতারকৃতদের রোববার (৫ এপ্রিল) সুনামগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়।

জানা গেছে, শিউলি বেগম ওরফে দিলসানা বেগম ওরফে ইয়াছমিন লন্ডনীকন্যা সেজে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন নাম ঠিাকানা ব্যবহার করে বিভিন্ন স্থানের ছেলেদের লন্ডনে নেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বিয়ে ও প্রেমের নাটক করে আসছেন। তাদের রয়েছে সিন্ডিকেট। সিন্ডিকেটের মাধ্যমে বিয়ে ও প্রেমের নাটক সাজিয়ে লন্ডন পাগল ছেলেদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার।

আসলে তিনি লন্ডনি কন্যা নন। নিজের রূপ-যৌবনকে কাজে লাগিয়ে প্রতারণা বাণিজ্য করে আসছেন। এরই ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি এ ভুয়া লন্ডনীকন্যাকে বিয়ে করেন জগন্নাথপুর উপজেলার লোহারগাঁও গ্রামের কাচা মিয়ার ছেলে আশরাফুর রহমান। কিছু দিন পর তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন লন্ডনীকন্যা বহুরূপি শিউলি বেগম।

সর্বশেষ লন্ডনীকন্যা শিউলি বেগমের আবারো বিয়ে হয় জগন্নাথপুর উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের আরেক ছেলের সাথে। খবর পেয়ে তার আগের স্বামী আশরাফুর রহমান বাদি হয়ে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে শনিবার (৩ এপ্রিল) রাতে জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার দাশের নেতৃত্বে পুলিশ দল পাইকপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে গ্রামের কামরুল ইসলামের বাড়ি থেকে দুই সহযোগিসহ ভুয়া লন্ডনীকন্যাকে নারীকে গ্রেফতার করেন।

গ্রেফতারকৃতদের রোববার (৫ এপ্রিল) সুনামগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়।

এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, গ্রেফতার হওয়া নারীরা ভুয়া লন্ডনীকন্যা সেজে প্রতারনা করছিল। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদের তিনজনকে গ্রেফতার করে সুনামগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন
  •  
  • 411
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত