সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৩:৫২ অপরাহ্ন১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৬ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
কোথায় হবে ‘ইউনিয়ন কমপ্লেক্স’ এনিয়ে গোয়াইনঘাটে দু’পক্ষের দুই মত

কোথায় হবে ‘ইউনিয়ন কমপ্লেক্স’ এনিয়ে গোয়াইনঘাটে দু’পক্ষের দুই মত

গোয়াইনঘাট থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা:: সিলেটের গোয়াইনঘাটের ১০নং আলীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ এর ইউনিয়ন কমপ্লেক্স ভবন কোথায় নির্মিত হবে এনিয়ে দুই মত নিয়ে দু’টি পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন স্থানীয় দুইটি গ্রামের লোকজন।

একটি অংশ চাইছেন ভোটার,জনসাধারণ বেশি ও মধ্যবর্তীস্থান বিবেচনায় সারী-গোয়াইন সড়কের রাউতগ্রামের বড়বাড়ির দোকান সংলগ্ন এলাকায় হোক এই ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন। অপর একটি অংশ চাইছেন সারী-গোয়াইন ও হাতিরপাড়া -ফতেহপুর পয়েন্টের অদূরেই হোক এই ইউপির কমপ্লেক্স ভবনটি। নিজ নিজ এলাকায় ইউপির ভবন গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তা,নাগরিক সুযোগ সুবিধার বিষয়টি নিয়ে দুটি অধ্যূষিত এলাকার বাসিন্দারা প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিকব্যক্তিবর্গের সহযোগিতা চাইছেন।

কোন এলাকায় গড়ে উঠবে ১০নং পশ্চিম আলীরগাও ইউনিয়ন পরিষদ ভবন এ নিয়ে বিবাদমান রাউতগ্রাম,বার্কিপুর ও হাতিরপাড়া,পুকাশ এলাকার মানুষজনের মধ্যে শুরু হয়েছে প্রতিযোগিতাও। রবিবার নবগঠিত এই ইউনিয়নের সম্ভাব্য কমপ্লেক্স ভবনের স্থান দুটি সরজমিনে পরিদর্শন করেন গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব।

পরিদর্শনকালে তিনি দুটি এলাকার জনসাধারণ কর্তৃক প্রস্তাবিত ভুমি নিজে ঘুরে দেখেন এবং ভুমির কোন আইনগত ত্রুটি আছে কিনা তা পর্যবেক্ষন করেন। দুপুর ১২টায় প্রথমেই তিনি আসেন ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থান সারী-গোয়াইন সড়কের রাউতগ্রামের বড় বাড়ির দোকান সংলগ্ন এলাকায় প্রস্থাবিত ভুমি পরিদর্শনে।

সেখানে এসে তিনি লাল পতাকায় বেষ্টিত পুরো প্রস্তাবিত ভুমি ঘুরে দেখেন। এ সময় সেখানে সমবেত এলাকার শতাধিক মানুষজন উক্ত ভুমির ব্যাপারে তাকে অবহিত করেন এবং এখানে প্রস্তাবিত ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনের স্বপক্ষে দাবি জানান। পরে তিনি সেখান থেকে আসেন হাতিরপাড়া পয়েন্টের হাতিরপাড়া-ফতেহপুর সংযোগ সড়কের পাশে হাতিরপাড়া এলাকার প্রস্তাবিত ভূমি পরিদর্শনে।

এখানেও তিনি প্রস্তাবিত ভূমি পরিদর্শন করেন। সরজমিনে পরিদর্শনকালে এসময় কথা হয় এলাকাবাসির সাথে। রাউতগ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজ উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা নুর উদ্দিন,বার্কিপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মালিক বাদশা মিয়া জানান, তাদের প্রস্থাবিত স্থানে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন গড়ে তুললে ইউনিয়নের সকল স্থানের নাগরিকদের সুবিধা সহজতর হবে। তাছাড়া উক্ত স্থানটি ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত এবং প্রস্তাবিত ভূমিও নিষ্কন্টক নির্ভেজাল।

তারা এ ব্যাপারে তাদের যৌক্তিক দাবি বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন। অপরদিকে উপর দুমকা গ্রামের আকবর আলী,মর্জাতপুরের নিজাম উদ্দিন,হাতিরপাড়া এলাকার বাসিন্দা গোয়াইনঘাট বাজারের ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন জানান,সারী-গোয়াইন সড়কের পাশাপাশি ফতেহপুর সড়কের পাশে হাতিপাড়া ষ্ট্যান্ডের আশপাশে নবগাঠত ১০ নং পশ্চিম আলীরগাও ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন স্থাপনের দাবি জানান।

১০নং পশ্চিম আলীরগাঁও ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আবুল খায়ের জানান, ১নং পশ্চিম আলীরগাঁও ইউনিয়ন কমপ্লেক্স ভবনের স্থান নির্ধারণে ২টি এলাকায় জনসাধারণের মধ্যে মত বিরোধ রয়েছে। বিষয়টির ফলপ্রসু সমাধানে শনিবার এ ব্যাপারে ইউনিয়নের জনসাধারণসহ একটি বৈঠক ডাক দিয়েছি।

আশা করা যায় সম্মিলতি মতামতের ভিত্তিতে বিয়ষটির সমাধান হবে। গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব বলেন, গোয়াইনঘাটের ১০নং পশ্চিম আলীরগাও ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণের প্রস্তাবিত দুটি স্থান পরিদর্শন করেছি।এ ব্যাপারে সিলেটের জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় সাংসদ,সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদকেও অবহিত করেছি। ইউনিয়নবাসির সার্বিক নাগরিক সুযোগ সুবিধা বিচেনা করতঃ জনস্বার্থে যেখানে ভালো হবে সেখানেই গড়ে উঠবে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন

শেয়ার করুন
  •  
  • 59
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত