মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৭:১৪ অপরাহ্ন১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৪ঠা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
জামায়াতের ‘নতুন কৌশল’ এবি পার্টি: মন্তব্য রাজনীতিবিদদের

জামায়াতের ‘নতুন কৌশল’ এবি পার্টি: মন্তব্য রাজনীতিবিদদের

সিলেটের বার্তা ডেস্ক:: গত ২ মে আত্মপ্রকাশ হওয়া ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি (এবিপার্টি)’ দলটি জামায়েতেরই নতুন একটি কৌশল।

এমনটাই মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের শীর্ষ পর্যায়ের রাজনীতিবিদরা।

সদ্য গঠিত ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি (এবিপার্টি)’র উদ্যোক্তাদের কঠোর সমালোচনা করেছেন ‍মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ লালনকারী রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা।

তারা বলছেন, পুরো জাতি এখন করোনা থেকে বাঁচার লড়াইয়ে ব্যস্ত। অথচ জামায়াতের একটি অংশ নতুন কৌশলে সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করছে। তবে, এই বিষয়ে বিএনপির কোনো নেতা মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এবি পার্টির উদ্যোক্তাদের কড়া সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের নেতা ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, ‘এই দল যে নামেই আসুক—তারা মূলত জামায়াতের লোক। কট্টরপন্থী, স্বাধীনতাবিরোধী। দেশ ও জাতি তাদের গ্রহণ করবে না।’

একই অভিমত জানালেন জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, ‘এই পার্টিতে যারা আছেন, তারা জামায়াতে আছেন কি না, তা বড় কথা নয়।’ তিনি বলেন, ‘করোনার মতো সংকটকালে যারা গঠনতন্ত্র তৈরিসহ দল গঠনের মতো এত বড় জটিল কাজ করতে পারে, তাদের মধ্যে মনুষ্যত্ব নেই। মনুষ্যত্ব থাকলে এমন সংকটের সময় দল গঠন করতে পারতো না।’

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, ‘এবি পার্টি যারা করছেন, তারা জামায়াতেরই ছিলেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘জামায়াত নিষিদ্ধ হওয়ার প্রেক্ষাপটে এবি পার্টি নাম দিয়ে তারা কৌশল পরিবর্তন করছেন কি না, তা তাদের পরবর্তী কাজেই পরিষ্কার হবে।’

জাতির জন্য এবি পার্টিকে ‘ধোঁকা’ হিসেবে দেখছেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এম এ মতিন; বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)-এর সাধারণ সম্পাদক এম এ সামাদ এবং বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী। তারা বলেন, ‘নতুন নামে তারা জামায়াতের নীতি-আদর্শই প্রতিষ্ঠা করবেন। হলফ করে বলতে পারি—তাদের স্বাধীনতাবিরোধী চরিত্র কখনোই বদলাবে না।’

এই তিন নেতা বলেন, ‘আমার বাংলাদেশ নামটাই গোলাম আজমের দেওয়া। এ নামেই তিনি একটি বই লিখেছেন। বইয়ে যা আছে, তা-ই এবি পার্টির গঠনতন্ত্র।’ তারা আরও বলেন, ‘স্বাধীনতাবিরোধীরা যে নামেই আসুক, দেশবাসী তাদের ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করবে।’

তবে, এবি পার্টিকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন। তিনি বলেন, ‘পার্টির লোকেরা জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করেছেন। নতুন দল করেছেন। আশা করি, এবার স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য তারা জাতির কাছে ক্ষমা চাইবেন। তাহলে জাতি হয়তো তাদের গ্রহণ করতে পারে।’

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘নতুন দল গঠনকে কোনোভাবেই দেখছি না। এ ব্যাপারে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই।’

জানতে চাইলে এবি পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মনজু বলেন, ‘জামায়াতের সঙ্গে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই।’

জামায়াতের স্বাধীনতাবিরোধী অবস্থানের জন্য আপনারা ক্ষমা চাইবেন কিনা—এমন প্রশ্নের সরাসরি কোনো জবাব দেননি মজিবুর রহমান মনজু। তবে, তিনি বলেন, ‘আমরা তাদের মতাদর্শ বর্জন করে চলে এসেছি। যারা অতীতে ভুল করেছেন তারা এখনো জামায়াতেই আছেন।’

উল্লেখ্য, গত ২ মে রাজধানীর বিজয়নগরে জামায়াতের সাবেক নেতা ও সাবেক সচিব এএফএম সোলায়মান চৌধুরীকে আহ্বায়ক এবং ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান মঞ্জুকে সদস্য সচিব করে আনুষ্ঠানিকভাবে এবি পার্টির আত্মপ্রকাশ ঘটে।

শেয়ার করুন
  •  
  • 58
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত