বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

৫ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

নোটিশঃ
★করোনাভাইরাস থেকে হেফাজত থাকতে পড়ুন-'লা-ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা, ইন্নি কুনতু মিনায যোয়ালিমীন'।। ★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
টাঙ্গুয়ার হাওর: যেখানে এক হয়েছে জল, জ্যোৎস্না পাহাড়

টাঙ্গুয়ার হাওর: যেখানে এক হয়েছে জল, জ্যোৎস্না পাহাড়

টাঙ্গুয়ার হাওরে পর্যটকদের ভীড়।

সিলেটের বার্তা ডেস্ক:: হাওরের রাজধানী খ্যাত সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওর। যেখানে স্বচ্ছ জলরাশি, জ্যোৎস্না আর পাহাড় একাকার হয়ে আছে।

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা ছিল। করোনায় ঘরবন্দী জীবন কাটিয়ে শ্বাস ফেলার ফুরসত মিলতেই নিষেধাজ্ঞা উঠার পরপরই হাওরে পর্যটকদের পদচারণা শুরু হতে চলেছে।

ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় সুনামগঞ্জের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের ঢল । করোনা সংক্রমণের ভীতি ভুলে দেশের উত্তর-পূর্ব প্রান্তের জীববৈচিত্র্যসমৃদ্ধ সবচেয়ে বড় জলাভূমি সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরের উচ্ছ্বাসে মাতোয়ারা পর্যটকরা।

ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় জেলার পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে আবারো পর্যটকদের ঢল নেমেছে। কর্মচাঞ্চল্য ফিরেছে নিলাদ্রী লেক, বারেকের টিলা ও জাদুকাটাসহ সুনামগঞ্জের অন্যান্য পর্যটন কেন্দ্রেও।

টাঙ্গুয়ার হাওরের জল, জ্যোৎস্না আর ভারতের মেঘালয় পাহাড়ের সৌন্দর্য একসঙ্গে দেখা যায়। ছয়কুড়ি বিল, নয়কুড়ি কান্দার সমন্বয়ের এ হাওর দৈর্ঘ্যে ১১ ও প্রস্থে ৭ কিলোমিটার। শীত, গ্রীষ্ম ও বর্ষা একেক ঋতুতে একেক রূপ ধারণ করে এই হাওর।

গত ১৯ মার্চ থেকে টাঙ্গুয়ার হাওয়ে পর্যটকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা থাকায় প্রকৃতি ফিরেছে আপন রূপে। নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়ার পর থেকেই হাওরে প্রকৃতি প্রেমীদের ঢল নেমেছে। তবে, টাঙ্গুয়ার হাওরে রাত্রীযাপনের সুবিধা পাচ্ছেন না পর্যটকরা।

Last Updated on

শেয়ার করুন
  •  
  • 80
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

সিলেটের বার্তা পরিবারঃ

এম. এ কাদির-বালাগঞ্জ প্রতিনিধি

লিটন পাঠান-মাধবপুর প্রতিনিধি

 

©সিলেটের বার্তা ২৪ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।