মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৭:০৩ অপরাহ্ন১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৭ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
নারী জঙ্গিসহ আনসার আল ইসলামের ৪ সদস্য আটক

নারী জঙ্গিসহ আনসার আল ইসলামের ৪ সদস্য আটক

নারী জঙ্গিসহ আনসার আল ইসলামের ৪ সদস্য আটক

নারী জঙ্গিসহ আনসার আল ইসলামের ৪ মদস্যকে আটক করা হয়েছে। রাজধানী ঢাকা ও শেরপুর জেলা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করেন র‌্যাব সদস্যরা।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মো. আব্দুল ওহাব ওরফে সিরাতুল মুস্তাকিম ওরফে হামজা বিন মুতালিব (৩০), বেলাল হোসাইন ওরফে খোরশানের মুজাহিদ (২২), মো. নাজমুল (১৭) ও ঝুমুর খাতুন ওরফে রোকাইয়া ওরফে হাজ্জাজ বিন মুতালিব (১৮)।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র এএসপি জিয়াউর রহমান চৌধুরী।

রবিবার র‌্যাব-৪ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের ১১টি উগ্রবাদী বই, ২১টি লিফলেট, ১৬৭টি জঙ্গিবাদী কথোপকথনের প্রমাণ জব্দ করা হয়।

জিয়াউর রহমান চৌধুরী জানান, গত ২৩ জানুয়ারি র‌্যাব-৪ আনসার আল ইসলামের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করে। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার সারা দিন রাজধানীর পল্টন ও ভাটারা থানাসহ শেরপুর জেলায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নিষিদ্ধ সংগঠনটির এক নারীসহ চারজন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিজেদের আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। গ্রেপ্তার মো. আব্দুল ওহাব জানায়, সে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষ করে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য বিদেশে যায়। পরবর্তীতে দেশে ফিরে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিল। এছাড়া আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য হিসেবে সে এই সংগঠনের অপর সদস্যদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ স্থাপনের পাশাপাশি অন্যদের উদ্বুদ্ধকরণের জন্য অনলাইনে বিভিন্ন উগ্রবাদী মতবাদ প্রচার করে আসছিল।

বেলাল হোসাইন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, সে পল্টনে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে এবং সে বেশ কিছু দিন যাবৎ আনসার আল ইসলাম এর সঙ্গে জড়িত থেকে তাদের নিজস্ব গ্রুপে ও অনলাইনে বিভিন্ন উগ্রবাদী লেখালেখি, ভিডিও এবং লিফলেট প্রচার করে আসছিল।

গ্রেপ্তার ঝুমুর খাতুন একজন ছাত্রী এবং সে আনসার আল ইসলামের কাজে জড়িত থেকে অন্যদের সঙ্গে গোপন বৈঠকের পাশাপাশি চাঁদা ও নতুন সদস্য সংগ্রহ করে আসছিল। এছাড়া সে পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে ৫ মাস আগে আব্দুল ওহাবকে বিয়ে করে। তারা মধ্যপ্রাচ্যে যাওয়ার পরিকল্পনা করে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে।

র‌্যাব-৪ জানায়, গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি তাদের সহযোগীদের গ্রেপ্তারে র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন
  •  
  • 84
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত