বুধবার, ০৫ অগাস্ট ২০২০, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন২১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৪ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

নোটিশঃ
★করোনাভাইরাস থেকে হেফাজত থাকতে পড়ুন-'লা-ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা, ইন্নি কুনতু মিনায যোয়ালিমীন'।। ★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
মশলা চা’য়ে করোনা দূর হোক

মশলা চা’য়ে করোনা দূর হোক

রান্না-রেসিপি বার্তা:: মহামারী করোনা ঠেকাতে, করোনা থেকে বাঁচতে বিশ্বের সকর মানুষ যখন পেরেশান। মানুষের খাবারের তালিকায় কী রাখা উচিত। কী খেলে, কী পান করলে মানুষ রোগ-বালাই থেকে থাকবে নিরাপদ।

করোকালীন অবস্থায় বিশেষজ্ঞরা বার বার গরম পানি বা মশলা চা খাওয়ার কথা বলছেন। এটা ছাড়াও বাঙালির সবচেয়ে প্রিয় পানীয় চা। কখনো আড্ডার ফাঁকে আর কখনো অফিসের ক্লান্তিতে। আর সারাদিন বিভিন্ন বাহানায় চা তো চলেই।
আজ তাই আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম মশলা চায়ের সহজ রেসিপি। আসুন জেনে নেই ঘরে থাকা উপাদান দিয়ে কিভাবে তৈরি করবেন মশলা চা।

উপকরণ: পানি, মধু, (ইচ্ছা) লেবুর রস, দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গ, আদা, তুলসি পাতা, কালোজিরা, চা পাতা। (এখানে সব মশলা একসাথে ব্যবহার করতে হবে না। আপনি আপনার পছন্দের দুই থেকে তিনটি মশলা ব্যবহার করলেই হবে)।

প্রণালি: মশলা ফুটানোর সময় কিছুটা পানি কমে যাবে। তাই এই ক্ষেত্রে যতটুকু চা বানাবেন তার দিগুণ পানি নিন। আপনি যদি চা বেশি কড়া করতে চান অথবা মশলার গন্ধ তীব্র করার জন্য বেশিক্ষণ ফুটাতে চান তবে সেই অনুযায়ী পানি একটু বেশি দিবেন। নয়তো মশলা বাড়িয়ে দিতে পারেন। এবার চুলায় পানি ফুটতে দিন।

পানি ফুটা শুরু করলে এতে আপনার পছন্দ অনুযায়ী দুই তিন রকমের যেকোনো মশলা দিয়ে ফুটান। পানিতে মশলা দিয়ে একটু বেশি সময় ফুটাতে হবে। ফুটানো হলে এতে এবার চা পাতা দিয়ে দিন। চায়ের সুন্দর রঙ ধরা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। চা পাতার মান ভালো নাহলে এক থেকে দুই মিনিটের মধ্যেই সুন্দর রঙ ধরে যাবে। এবার মধু দিন (ইচ্ছা)। এক মিনিট পর চুলা বন্ধ করে ইচ্ছে হলে লেবুর রস দিন। এবার গরম গরম পরিবেশন করুন লেবু- মধুর ধোঁয়া ওঠা চা।

টিপস: আপনি চাইলে একসাথে বেশি করে বানিয়ে রেখে সারাদিন গরম করে করে এখান থেকেই খেতে পারবেন। এতে মশলার সঠিক উপাদানগুলো সম্পূর্ণ পাবেন।

Last Updated on

শেয়ার করুন
  •  
  • 34
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

সিলেটের বার্তা পরিবারঃ

এম. এ কাদির-বালাগঞ্জ প্রতিনিধি

লিটন পাঠান-মাধবপুর প্রতিনিধি

 

©সিলেটের বার্তা ২৪ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।