বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:৪১ অপরাহ্ন১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১২ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
আজ আ.লীগ নেতা আজিজুর রহমান’র তৃতীয় মৃত্যুবাষির্কী

আজ আ.লীগ নেতা আজিজুর রহমান’র তৃতীয় মৃত্যুবাষির্কী

গোয়াইনঘাট থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা:: আজ মঙ্গলবার সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মরহুম আজিজুর রহমান মাস্টারের তৃতীয় মৃত্যুবাষির্কী।

এ উপলক্ষে শুক্রবার পারিবারিক আয়োজনে কোরআন খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত হবে।

মোঃ আজিজুর রহমান মাস্টার ছিলেন একজন শিক্ষাবিদ এবং উত্তর সিলেটের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত প্রাণকর্মী এবং সংগঠক। তিনি ইউনিয়ন, উপজেলা ছাত্রলীগের দায়িত্বের পাশাপাশি সিলেটের মদন মোহন কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতির অগ্রভাগে ছিলেন।

এছাড়াও তিনি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা যুবলীগ এবং কৃষকলীগের বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন।১৯৮৪ এবং ১৯৯৫ সালে পরপর দুবার তিনি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে দক্ষতার সহিত দায়িত্ব পালন করেবাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক পরিক্রমাকে এগিয়ে নিয়ে আসেন।তিনি ১৯৯৮ সালে গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে সম্মেলনে প্রার্থী হলে তৃণমূলের আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের নিরংকুশ সমর্থনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর আজিজুর রহমান মাষ্টার গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বকে গতিশীল করণে উপজেলা থেকে ওয়ার্ড পর্যায়ে ও চাঙ্গা এবং সুসংগঠিত করেন। তিনি ২০০৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের গোয়াইনঘাট উপজেলা শাখার সম্মেলনে সিনিয়র সহ সভাপতির দায়িত্ব পান।উপজেলা থেকে তৃণমূল পর্যন্ত একজন নিবেদিত প্রাণ আওয়ামীলীগের কর্মী এবং জনবান্ধব নেতা হিসাবে আজিজুর রহমান মাষ্টার কাজ করে গেছেন। জীবদ্বশায় আজিজুর রহমান মাষ্টার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গঠনে স্বপ্ন পূরণে এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় আনুগত্যের ভেতরে থেকে কাজ করে গেছেন। বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ জীবদ্বশায় কখনো দলীয় কর্মী সমর্থকদের প্রতি হিংসাত্মক কোন আচরণ কিংবা রাজনৈতিক সৃষ্টাচার বর্হিঃভূত কোন কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন না।

আজিজুর রহমান মাষ্টার রাজনৈতিক জীবনের পাশাপাশি মানুষ গড়ার কারিগরি শিক্ষক হিসাবে গোটা সীমান্ত জনপদে পরিচিত ছিলেন। তিনি শিক্ষকতাজীবনে প্রথমে গোয়াইনঘাটের গোরাগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, জৈন্তাপুরের হরিপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় এবং সর্বশেষ ১৯৮১ সাল হইতে মৃত্যুর আগ পর্যন্ততিনি গোয়াইনঘাট সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক হিসাবেকর্মরত ছিলেন। তিনি একজন সালিশ ব্যক্তিত্ব হিসাবে গোটা গোয়াইনঘাটজুড়ে আলোচিত ছিলেন। সমাজের ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় তার অসামান্য অবদান এখনো গোয়াইনঘাট বাসীর মুখে মুখে প্রকাশ হচ্ছে। বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ ১৯৫৭ সালের ২৮ জুলাই সিলেটের গোয়াইনঘাটের ১নং রুস্তমপুর ইউনিয়নের বিছনাকান্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ০৭ জুলাই ২০১৭ সালে শুক্রবার ৪টা ৪০ মিনিটের সময় ঢাকা গ্রীন লাইফ হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

শেয়ার করুন
  •  
  • 219
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত