মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৬:০৯ অপরাহ্ন১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৪ঠা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
সাহেববাজারে চাচার হাতে ভাতিজা খুন

সাহেববাজারে চাচার হাতে ভাতিজা খুন

সিলেটের বার্তা ডেস্ক:: সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের সাহেববাজারে আপন চাচার হাতে খুন হয়েছেন আল আমিন।

বাড়ির সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চাচার ছুরিকাঘাতে তিনি নিহত হন।

আল আমিন সাহেববাজার ফড়িংউড়া গ্রামের মুসা মিয়ার ছেলে।

সোমবার (১ জুন) ভোরে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রোববার (৩১ মে) দুপুরে আপন চাচা ইলিয়াস মিয়ার ছুরিকাঘাতে আল আমিন গুরুতর আহত হন। পরে তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার দেহে জরুরী ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোরে তিনি মারা যান। এ ঘটনার পর থেকে ইলিয়াস ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছেন।

নিহতের বাবা মুসা মিয়া বলেন, সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তার আপন ভাই ইলিয়াস মিয়ার ছুরিকাঘাতে আমিন খুন হয়েছে।

তিনি বলেন, ইলিয়াসের সঙ্গে আগে থেকেই সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে তার ছেলে আল আমিনের উপর সহযোগীদের নিয়ে হামলা চালায় ইলিয়াস। তার সঙ্গে ছিল হেলাল, হোসেন, ফরিদসহ আরো কয়েকজন সহযোগী ছিল। তারা প্রকাশ্যে আল আমিনকে ছুরিকাঘাত করে রাস্তায় ফেলে রেখে যায়।

নিহত আল আমিন সুপার চেইন শপ ফিজা এন্ড কোং’র একটি শো রুমে কাজ করতো। লকডাউনের ছুটিতে বাড়িতে অবস্থানকালে তিনি সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তার এক বছরের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম শাহাদাত হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। খুনের ঘটনায় জড়িতরা পালাতক রয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

শেয়ার করুন
  •  
  • 81
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত