মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট ২০২০, ০৫:২৪ অপরাহ্ন২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৩ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

নোটিশঃ
★করোনাভাইরাস থেকে হেফাজত থাকতে পড়ুন-'লা-ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা, ইন্নি কুনতু মিনায যোয়ালিমীন'।। ★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
সিলেটে কুরবানীর জন্য প্রস্তুত দুই লাখ পশু

সিলেটে কুরবানীর জন্য প্রস্তুত দুই লাখ পশু

করোনা থেকে বাঁচতে অনলাইনে পশু কেনার আহবান জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার

 

সিলেটের বার্তা প্রতিবেদক:: বিশ্বকাঁপানো মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে পাল্টে গেছে মানুষের জীভনযাত্রার চিত্র। করোনাকালের মাঝে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে।আসন্ন ঈদুল আযহাও পালিত হবে এই মহামারীর প্রাদূর্ভাবে।

ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে সিলেটে প্রস্তুত রয়েছে ২ লাখ কুরবানীর পশু।এবার সিলেট জেলায় কুরবানীর পশুর চাহিদা দু’লাখ তবে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের কাছে মজুদ আছে ১ লাখ পশু। সিলেটবাসীর চাহিদা পূরণে বাইরের বিভিন্ন জেলার খামারী, বেপারীদের সাথে আলাপ-আলোচনা করে বাকি পশুরও ব্যবস্থা কার্যক্রম ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে সংশ্লিষ্ট দপ্তর।

সিলেট জেলা প্রাণী সম্পদ সূত্র জানায়, এবার সিলেটে কুরবানীর জন্য ১ লাখ ৯৮ হাজার ৬৮৯ টি পশুর চাহিদা আছে।
তবে এই চাহিদা পূরণে সিলেট জেলায় মজুদ আছে প্রায় ১ লাখ পশু। যার মধ্যে গরু-৫৫ হাজার ৩শ’ ৪৫টি, মহিষ-৮ হাজার ৩৯টি, ছাগল-৬ হাজার ৫শ’ ২৯টি, ভেড়া-১ হাজার ৬শ’ ৪৩টি।

উপজেলাভিত্তিক বিক্রয়যোগ্য কুরবানীর পশুর সংখ্যা হচ্ছে- সিলেট সদরে গরু-৮ হাজার ২শ’ টি, মহিষ-১৫টি, ছাগল-১ হাজার ৭শ’ ৬০টি, ভেড়া-২শ’ ৬০টি।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলায়-গরু-৬ হাজার ৪শ’ ২৮টি, ছাগল-১ হাজার ৩শ’ ১৫টি, ভেড়া-৪শ’ ১০টি।
বিশ্বনাথে-গরু-৪ হাজার ৫শ’ ২৯টি, মহিষ-১৫টি, ছাগল-২৩০টি, ভেড়া-৯০টি।
বালাগঞ্জ উপজেলায় আছে-গরু-৩ হাজার ৫শ’ ২৩টি, ছাগল-৩০০টি, ভেড়া-৮৫টি।
ফেঞ্চুগঞ্জে-গরু-২ হাজার ৭শ’ ৮৬টি, ছাগল-৭০টি, ভেড়া-১৩টি বিক্রয়যোগ্য পশু রয়েছে।
ওসমানিনগর উপজেলায় আছে-গরু-৩ হাজার ৬শ’ ৪৪টি, ছাগল-২৯৯টি, ভেড়া-২০০টি।
গোয়াইনঘাটে-গরু-৩ হাজার ১শ’ ২৩টি, মহিষ-১৩০টি, ছাগল-৪১০টি, ভেড়া-৩৫টি।
কানাইঘাট উপজেলায় আছে-গরু-৩ হাজার ৫শ’ ৪০টি, মহিষ-২৩৩টি, ছাগল-৫০০টি, ভেড়া-৭০টি।
জকিগঞ্জে-গরু-৩ হাজার ৪শ’ ৩৪টি, মহিষ-৮৫টি, ছাগল-৩০৫টি, ভেড়া-৩০টি।
জৈন্তাপুরে রয়েছে-গরু-৩ হাজার ২শ’ ৫১টি, মহিষ-২৫টি, ছাগল-২৫০টি, ভেড়া-৫০টি।
বিয়ানীবাজারে–গরু-৪ হাজার ৩শ’ ১২টি, মহিষ-৩৩৫টি, ছাগল-৩০০টি, ভেড়া-১২০টি।
গোলাপগঞ্জে-গরু-৫ হাজার ৮শ’ ২৬টি, মহিষ-১৬টি, ছাগল-৫৯০টি, ভেড়া-১৯০টি।
কোম্পানিগঞ্জ উপজেলায় আছে-গরু-২হাজার ৭শ’ ৪৯টি, ছাগল-২০০টি, ভেড়া-৯০টি।

সিলেটে জেলায় বিক্রয়যোগ্য কুরবানীর এই পশুগুলো ক্রেতাসাধারণরা চাইলে অনলাইনেও কিনতে পারবেন। প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর কর্তৃক ‘অনলাইন পশুর হাট dls.sylhet’ নামে অনলাইন ফেসবুক পেইজে রয়েছে পশুর ছবি ও দাম।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এবার অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রির এই উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এতে বিশেষ করে যাতে প্রবাসী ক্রেতারা সুযোগ পান সেই বিষয়টি মাথায় রেখে সাজানো হচ্ছে পরিকল্পনা। ইতোমধো সিলেট জেলা পশুসম্পদ কর্মকর্তাসহ ওয়েবসাইটে লক্ষাধিক গরুর ছবি সহ বিবরণ রয়েছে। থাকবে মালিক কিংবা খামারির নাম-ঠিকানা। একটি মূল্যও দেয়া আছে। পশুর বর্ণনা দেখে ক্রেতারা উৎসাহী হলে খামারে কিংবা বাড়িতে গিয়েই কিনে আনতে পারবেন কোরবানির পশু।

করোনা ভাইরাস থেকে নিজে বাঁচতে অন্যকে বাঁচাতে অনলাইনে পশু কিনতে উৎসাহিত করা হয়েছে সিলেট জেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে।

এবারের ঈদে ভারতীয় গরু কোনক্রমেই আসবে না উল্লেখ করে সিলেট জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. কাজী আশরাফুল ইসলাম বলেন-এব্যাপারে সরকার খুব কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেশীয় গরু দিয়ে দেশের চাহিদা পূরণে শতভাগ সক্ষম প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর।

তিনি সিলেটবাসীকে অনলাইনে কুরবানীর পশু ক্রয় করার অনুরোধও জানিয়েছেন।

Last Updated on

শেয়ার করুন
  •  
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

সিলেটের বার্তা পরিবারঃ

এম. এ কাদির-বালাগঞ্জ প্রতিনিধি

লিটন পাঠান-মাধবপুর প্রতিনিধি

 

©সিলেটের বার্তা ২৪ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।