রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৩:১৫ অপরাহ্ন২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২২শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
সিলেট সিটির অর্ন্তভূক্ত হচ্ছে খাদিমপড়া, টুলটিকর, দক্ষিণ সুরমা ও শাবি

সিলেট সিটির অর্ন্তভূক্ত হচ্ছে খাদিমপড়া, টুলটিকর, দক্ষিণ সুরমা ও শাবি

সিলেটের বার্তা রিপোর্ট:: সিলেট সিটি করপোরেশনের আয়তন দ্বীগুন হচ্ছে। সিলেট সদর উপজেলার খাদিমপাড়া, খাদিমনগর, টুলটিকর ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা এবং দক্ষিণ সুরমা এলাকার বরইকান্দি, কুচাইয়ের কয়েকটি মৌজা সিলেট সিটির অর্ন্তভূক্ত হতে যাচ্ছে।

রবিবার (৯ আগস্ট) এ সংক্রান্ত গণবিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেছেন সিলেট জেলা প্রশাসক কাজী এম. এমদাদুল ইসলাম।

গণবিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত এলাকাগুলো সিসিকে যুক্ত হলে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আয়তন বেড়ে দাঁড়াবে প্রায় ৫৮ বর্গকিলোমিটার।

এর আগে ২০০২ সালে সিলেট পৌরসভা থেকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত হয়। প্রাথমিকভাবে ২৬.৫ বর্গকিলোমিটার জায়গা নিয়ে যাত্রা শুরু করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

এদিকে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকা সম্প্রসারণের নিমিত্তে সিলেট সদর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলার নিম্নোক্ত এলাকা/ভূমি প্রাথমিকভাবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। অন্তর্ভুক্তি এলাকার অধিবাসীগণকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্তের প্রাথমিক সিদ্ধান্তের বিষয়ে কোন ধরণের পরামর্শ বা আপত্তি থাকলে আগামী ৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জেলা প্রশাসক, সিলেট বরাবর লিখিত আবেদনের মাধ্যমে জানানোর অনুরোধ করা হলো।’

স্থানীয় সরকার বিভাগ, সিলেটের উপপরিচালক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, আমরা একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছি। গণবিজ্ঞপ্তিতে ৮ সেপ্টেম্বর তারিখের মধ্যে আপত্তি জানানোর কথা বলা হয়েছে। যদি কেউ আপত্তি করেন তাহলে এটি সমাধান করা হবে। পরে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হবে। তবে নতুন করে কতটি ওয়ার্ড সংযুক্ত হচ্ছে এটি এখনই বলা যাচ্ছে না।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশন বর্ধিত করে দ্বিগুণ করার প্রক্রিয়া চলছে।

দীর্ঘ অপেক্ষার পর এবার আয়তনে দ্বিগুণ হচ্ছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকা। রোববার সিলেট সদর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলার কয়েকটি এলাকা সিসিকের আওতাভুক্ত করে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। গণবিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

গণবিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত এলাকাগুলো সিসিকে যুক্ত হলে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আয়তন বেড়ে দাঁড়াবে প্রায় ৫৮ বর্গকিলোমিটার।

এর আগে ২০০২ সালে সিলেট পৌরসভা থেকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত হয়। প্রাথমিকভাবে ২৬.৫ বর্গকিলোমিটার জায়গা নিয়ে যাত্রা শুরু করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

এদিকে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকা সম্প্রসারণের নিমিত্তে সিলেট সদর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলার নিম্নোক্ত এলাকা/ভূমি প্রাথমিকভাবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। অন্তর্ভুক্তি এলাকার অধিবাসীগণকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্তের প্রাথমিক সিদ্ধান্তের বিষয়ে কোন ধরণের পরামর্শ বা আপত্তি থাকলে আগামী ৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জেলা প্রশাসক, সিলেট বরাবর লিখিত আবেদনের মাধ্যমে জানানোর অনুরোধ করা হলো।’

স্থানীয় সরকার বিভাগ, সিলেটের উপপরিচালক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, আমরা একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছি। গণবিজ্ঞপ্তিতে ৮ সেপ্টেম্বর তারিখের মধ্যে আপত্তি জানানোর কথা বলা হয়েছে। যদি কেউ আপত্তি করেন তাহলে এটি সমাধান করা হবে। পরে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হবে। তবে নতুন করে কতটি ওয়ার্ড সংযুক্ত হচ্ছে এটি এখনই বলা যাচ্ছে না।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশন বর্ধিত করে দ্বিগুণ করার প্রক্রিয়া চলছে।

শেয়ার করুন
  •  
  • 342
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত