মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৪ঠা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশঃ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
হরিপুরে নৃশংসভাবে মেছোবাঘ ও শেয়ালকে পিটিয়ে হত্যা

হরিপুরে নৃশংসভাবে মেছোবাঘ ও শেয়ালকে পিটিয়ে হত্যা

সিলেটের বার্তা ডেস্ক:: সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বালিপাড়ায় নৃশংসভাবে ২টি মেছোবাঘ ও ৬টি শেয়ালকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন স্থানীয়রা। 

শুক্রবার (২৯ মে ) সকাল ১০টায় ওই গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হাওর অঞ্চল বন্যায় প্লাবিত হওয়ায় গ্রামের উচু স্থানে এসে আশ্রয় নিচ্ছে মেছুবাঘসহ শেয়ালগুলো।

শুক্রবার সকালে খাবারের খোঁজে লোকালয়ে আসলে কৌশলে তাদেরকে ধরে ফেলে হত্যাকারীরা। স্থানিয় এলাকাবাসি মিলে লাটি ও পাথর দিয়ে এদের উপর আক্রমন করে হত্যা করে। মেছুবাঘ ও শেয়াল গুলো হত্যা করার পর আনন্দিত হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যাম ফেসবুকে ছবি পোষ্ট দেন।
এ বিষয়ে জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহেদ আহমদ বলেন, বন্যার সময় বিভিন্ন হাওর থেকে উঠে আসা এইসব প্রাণীকে হত্যা করা খুব দুঃখজনক ঘটনা। আমরা এই প্রাণীর গুলোকে আ¯্রয় না দিয়ে হত্যা করছি। আসুন সবাই মিলে প্রাণী গুলোকে আ¯্রয় দেই।
এ বিষয়ে পরিবেশবিদ আব্দুল হাই আল হাদি বলেন, আমরা প্রায়ই বিভিন্ন বন্যপ্রাণী হত্যার খবর শুনি। এলাকাবাসী উল্লাস করে বন্যপ্রাণী হত্যা করে। মৃত প্রাণীর সাথে সেলফি তোলে। বহু হত্যাকান্ডের অকাট্য প্রমাণ থাকে এইসব ছবিতেই। এটা খুব ন্যাক্কারজনক ঘটনা। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ যেখানে বন্যপ্রাণীকে সুরক্ষা দেবে, সেখানে এই আইনের প্রয়োগ খুব লঘুভাবেই প্রেকাশ পাচ্ছে। এই ঘটনাটি একই সাথে নৈতিক অবক্ষয় এবং আইন লঙ্ঘনের ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। বনবিভাগকে একটা দৃষ্টান্ত মূলক আইনি ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোদ জানাই।
এ ব্যাপারে জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা পারভীন বলেন, ওই এলাকার যেসকল প্রাণীকে হত্যা করা হয়েছে এটি খুব দুঃখজনক ঘটনা। আমি এ বিষয়ে খুব দ্রুত আইনি প্রদক্ষেপ নিবো।

শেয়ার করুন
  •  
  • 30
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত