সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০২:৪১ অপরাহ্ন১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১লা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

নোটিশঃ
★করোনাভাইরাস থেকে হেফাজত থাকতে পড়ুন-'লা-ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা, ইন্নি কুনতু মিনায যোয়ালিমীন'।। ★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
২০ হাজার ডলারে মুশফিকের ব্যাট কিনলেন আফ্রিদি

২০ হাজার ডলারে মুশফিকের ব্যাট কিনলেন আফ্রিদি

খেলাধুলা বার্তাঃ ২০ হাজার ডলারে মুশফিকুর রহিমের ব্যাট কিনলেন পাকিস্তানের ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি।

করোনা যুদ্ধে এগিয়ে আসতে নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোর ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন মুশফিকুর রহিম।

২০ হাজার ডলারে মুশফিকের ঐতিহাসিক ব্যাটটি কিনে নিয়েছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১৭ লাখ টাকা। পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়কের গড়া ‘দ্য শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’ -এর ব্যানারে ব্যাটটি কেনা হয়েছে বলে জানা গেছে। ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে ব্যাট দিয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন মুশফিক সেই ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন।

মুশফিকুর রহিম বৃহস্পতিবার রাতে লাইভ আড্ডায় যোগ দিয়ে নিজের ব্যাট বিক্রির সুখবরটি দেন। জাতীয় দলের এ ক্রিকেটার বলেন,‘গত ১৩ মে দ্য শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন থেকে আমরা একটি ই-মেইল পাই। তারা আমার ব্যাটটি নিতে আগ্রহ দেখায়। পরবর্তীতে আমাদের যোগাযোগে ভিত্তিতে ব্যাটটি নিলামে কিনে নেয়। ২০ হাজার ডলার দিয়ে সর্বোচ্চ বিডার হয়েছে দ্য শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন।’

শহীদ আফ্রিদিকে ধন্যবাদ জানিয়ে মুশফিক বলেন,‘আমি সব সময়ই শহীদ আফ্রিদির বড় ফ্যান। উনার সাথে আমার বিপিএলে এক মৌসুমে খেলা হয়েছে, সিলেট রয়্যালসে। উনি খুব বড় ব্যক্তিত্ব। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই তাকে। বিশেষ করে তার ফাউন্ডেশনকে। আমি খুব খুশি যে আমার ব্যাটটি তারা কিনেছে। এ অর্থ পুরোটাই দুস্থ মানুষের সেবায় ব্যবহার করা হবে।’ ২০১৪ সালে আফ্রিদি নিজের ফাউন্ডেশন গড়ে তোলেন। এরপর থেকে নিয়মিত সামাজিক কার্যক্রমে অবদান রাখছেন। করোনা মহামারির সময়ে নিজের ফাউন্ডেশন থেকে নিয়মিত সাধারণ মানুষকে সাহায্য করছেন ‘বুম বুম’ খ্যাত আফ্রিদি।

ভিডিও বার্তায় মুশফিককে শুভেচ্ছা জানিয়ে আফ্রিদি বলেছেন,‘মুশফিক আপনি দেশের মানুষের জন্য যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা প্রশংসনীয়। এ ধরনের কাজ বাস্তব জীবনের নায়করা করে থাকে। আমরা কঠিন সময় কাটাচ্ছি। এ সময়ে আমাদের একে অপরকে দরকার, একে অপরের পাশে থাকতে হবে।’

‘বাংলাদেশ থেকে আমি যে ভালোবাসা, স্নেহ পেয়ে এসেছি, সব সময় আমার মনে থাকবে। আপনার ক্রিকেট ব্যাটটি কিনে পুরো পাকিস্তান, আমি আপনার যুদ্ধে যোগ দিতে চাই। পুরো পাকিস্তান এবং শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন আপনার সাথে আছে। আমাদের প্রার্থণা আপনার সাথে আছে। আশা করছি সৃষ্টিকর্তা শিগগিরিই আমাদের এ মহামারি থেকে রক্ষা করবে। তখন আমরা আবারো ক্রিকেট মাঠে একসঙ্গে খেলতে পারব।’

গত ৯ মে মুশফিকের ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়। গতকাল ছিল নিলামের শেষ সময়। এর মাঝে নিলাম বন্ধ রাখতে হয়েছে ভুয়া বিডের কারণে। প্রচুর ভুয়া বিড করা হয়েছিল ব্যাটটির জন্য। আকাশচুম্বি দামও হাঁকানো হচ্ছিল। সেসব ভুয়া বিডের কারণে আন্তর্জাতিক গলফার টাইগার উডসের ফাউন্ডেশন থেকে বিশাল অঙ্কের বিড হারিয়েছে বলে জানালেন আয়োজকরা। সেসব ভুয়া বিডারদের উদ্দেশ্য করে মুশফিক বলেন,‘আমি ধিক্কার জানাতে চাই যারা ভুয়া বিড করেছেন। আপনি শুধু আমার নামকে ছোট করেননি, বাংলাদেশ ক্রিকেটকে ছোট করেননি, বাংলাদেশকে ছোট করেছেন। আপনার একটি ভুয়া বিডের খবর সারাবিশ্বে পৌঁছে গেছে। মনে রাখবেন আল্লাহ যার পাশে থাকে তাকে কেউ কখনো আটকে রাখতে পারেনা।’

মুশফিকের ব্যাটটি বিক্রির পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন তামিম ইকবাল। জানা গেছে জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম আয়োজকদের পাশাপাশি নিজেও ব্যাটটির জন্য দর কষাকষি করেছেন।

ভুয়া বিডারের ওপর নিজের রাগ ঝারলেও যারা ব্যাটটি পাওয়ার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুশফিক। তাঁর ভাষ্য,‘আমার ব্যাটটি কিনতে অনেকেই আগ্রহ দেখিয়েছেন। পোলান্ড থেকে একজন আজও ব্যাটটি নিতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। বাংলাদেশ থেকে যারা ব্যাটটি নিতে চেয়েছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। নিশ্চয়ই আপনারা আমাকে, বাংলাদেশ ক্রিকেটকে পছন্দ করেন। আপনাদের ধন্যবাদ।’

Last Updated on

শেয়ার করুন
  •  
  • 57
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

সিলেটের বার্তা পরিবারঃ

এম. এ কাদির-বালাগঞ্জ প্রতিনিধি

লিটন পাঠান-মাধবপুর প্রতিনিধি

 

©সিলেটের বার্তা ২৪ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।