বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

২৫শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

নোটিশ
★সিলেটের বার্তায় প্রতিনিধি/সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে। তাই যোগাযোগ করুন নিম্নের মেইল অথবা নাম্বারে।
সিলেটে চুরি-ছিনতাই করে ফেসবুকে মোবাইল বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতো তারা

সিলেটে চুরি-ছিনতাই করে ফেসবুকে মোবাইল বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতো তারা

ওরা সাতজনকে গ্রেফতার করেছে সিলেট মহানগর পুলিশ। এদের সংখ্যা শুধু সাতেই সীমাবদ্ধ নয়। ওদের রয়েছে বিশাল নেটওয়ার্ক।

এসএমপির অভিযানে ধরা পড়েছে মোবাইল ছিনতাই/চুরির একটি চক্রের ৭ জন।

যাত্রীবেশে অটোরিকশা উঠে তারা। অন্য যাত্রীর বুকে ছুরি ধরে মোবাইল ফোন ছিনতাই করাই যাদের নেশা।

চুরি-ছিনতাইয়ের মোবাইল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সিলেটের বেচাকেনা নামের বিভিন্ন গ্রুপে বিক্রয়ের বিজ্ঞাপন দিতো।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার অতিরিক্ত উপকমিশনার বি.এম. আশরাফ উল্যাহ তাহের জানান, গত জানুয়ারি মাসে কুচাইয়ে একজন আইনজীবীর মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনার পর চাঞ্চল্যকর এই তথ্যটি পুলিশের কাছে ধরা পড়ে। দীর্ঘ ৫ মাস অনুসন্ধান শেষে সিলেটের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এই চক্রের মূল হোতাসহ তার দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করে মোগলাবাজার থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মৌলভীবাজারের সদর থানার আমতৈল এলাকার চলকাপন গ্রামের মৃত নীল মিয়ার ছেলে আইয়ুব আলী (২২), হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার শাকপা টুকেরবাজার এলাকার মৃত চান মিয়ার ছেলে আইনুল হক (২০) ও দক্ষিণ সুমরা উপজেলার শিববাড়ি এলাকার জৈনপুর গ্রামের মৃত সিকান্দর আলীর ছেলে বেলাল আহমদ (২২), জালালাবাদ থানার চরুগাও এলাকার ইমাম হোসেনের ছেলে মো. শামীম মিয়া (২২), চুনারুঘাটের সাটিয়াজুরি গ্রামের মৃত নূর হোসেনের ছেলে সোলেমান (২২), মোগলাবাজার থানাধীন কুচাই গ্রামের মো. খলকু মিয়ার ছেলে রুবেল (২৪), নবীগঞ্জ সাকুয়া গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহ’র ছেলে ছাইদ উল্লাহ (২১)। এদের মধ্যে আইয়ুব আলী এই চোর চক্রের মূল হোতা। তবে তার আপন বড় ভাই আব্দুস শহীদকে এখনো ধরতে পারেনি পুলিশ।

এ চক্রটি ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে কম দামে মোবাইল ফোন বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দেয়। তবে এক আইডি বেশিদিন ব্যবহার করে না। কিছু মোবাইল বিক্রির পর সেই আইডি ডিঅ্যাক্টিভ করে নতুন আরেকটি আইডি খুলে। সিলেটে চোরাই ও ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোনগুলো কম দামে বিক্রি করে। এ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে এভাবে অনলাইনে অপরাধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে। তবে শেষ রক্ষা হয়নি।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, সিলেটের ছিনতাইকারীসহ বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে প্রতিদিন মোবাইল ফোন ক্রয় করে তারা। পরে সেগুলো অনলাইনে বিক্রি করে। রোববার (১৩ জুন) গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আরেক মূল হোতা আব্দুস শহিদসহ এ চক্রের অপর সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন
  •  
  • 99
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





Sylheter#Barta@777

©এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব sylheterbarta24.com কর্তৃক সংরক্ষিত